১৩ Jul ২০২৪, শনিবার, ১২:৫১:২২ অপরাহ্ন


বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে মা-মেয়ের মৃত্যু
অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৭-০৬-২০২৩
বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে মা-মেয়ের মৃত্যু ছবি: সংগৃহীত


গাংনী উপজেলার হাড়াভাঙ্গা গ্রামে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে থাকা অবস্থায় মা তাছলিমা খাতুন (২৮) ও তার দেড় বছর বয়সী শিশু কন্যা মাহি খাতুনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এদিকে তাছলিমার স্বামী মিন্টু গা ঢাকা দিয়েছে। মিন্টু হাড়াভাঙ্গা পশ্চিম পাড়া গ্রামের বাসিন্দা। 

মঙ্গলবার (৬ জুন) দিবাগত রাত ৯ টার দিকে তাছলিমার স্বামীর বাড়ি থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধার করে গাংনী থানা পুলিশের একটি দল।

স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৯ টার দিকে তাছলিমা ও তার শিশু কন্যা মাহির লাশ বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে থাকা অবস্থায দেখতে পান তাছলিমার শ্বাশুড়ি। বিষয়টি প্রতিবেশীদের জানালে তারা ছুটে এসে দেখে মা ও মেয়ের নিথর দেহ পড়ে রয়েছে।

এ বিষয়ে মিন্টুর স্বজনরা জানান, বিদ্যুৎ লাইন থেকে চার্জার ব্যাটারি খুলতে গেলে মা ও মেয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে মারা গেছেন। 

তবে এলাকার লোকজন জানান, এ মৃত্যু রহস্যজনক। কারন মিন্টু চেীধুরীর স্ত্রী সন্তান থাকা সত্বেও গত ১ সপ্তাহে আগে অন্য নারীকে বিয়ে করেছেন। এ বিয়েকে কেন্দ্র করে তাছলিমা প্রতিবাদ করতে গেলে মিন্টু তাকে মারধর করেন। কয়েকদিন ধরে মিন্টু তার স্ত্রীর উপর অমানুষিক অত্যাহার নির্যাতন চালিয়ে আসছিল। ফলে মিন্টু কৌশলে তার স্ত্রী-সন্তানকে হত্যা করে বিদ্যুৎ লাইনে জড়িয়ে মারা গেছে বলে নাটক সাজাচ্ছে। তবে অনেকেই বলছেন, তাছলিমা তার শিশু কন্যাকে নিয়ে ইচ্ছা করেই আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন।


গাংনী থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বলেন, মনে হচ্ছে বিদ্যুতের লাইনে শরীর স্পর্শ করার কারনে মা ও মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। তবে তদন্ত শেষে প্রকৃত ঘটনা বলা সম্ভব হবে।