০৬ ডিসেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার, ০১:২০:১৩ অপরাহ্ন


বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে জেলা প্রশাসনের সাথে এসিডির মতবিনিময়
স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৩-০৩-২০২২
বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে জেলা প্রশাসনের সাথে এসিডির মতবিনিময় বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে জেলা প্রশাসনের সাথে এসিডির মতবিনিময়


বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ এবং এর কূফল সম্পর্কে জানাতে প্রতিনিয়ত উঠান বৈঠক, প্রচারাভিযান, সভা-সমাবেশসহ জনসচেনতামূলক কার্যক্রম গ্রহণে সকলে এগিয়ে এলে বাল্যবিবাহ বন্ধে কার্যকর ফলাফল পাওয়া সম্ভব বলে মনে করেন বক্তারা।

রোববার (১৩ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টায় রাজশাহী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসনের নির্ধারিত আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় সদস্য সংগঠন এ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্ট (এসিডি) বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে বাস্তবায়িত কার্যক্রম এবং আর কী করা যেতে পারে তাই নিয়ে একটি মাল্টিমিডিয়া উপস্থাপনা শেষে এসকল কথা বলেন।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সাবিহা সুলতানার সভাপতিত্বে ইউনিসেফ এর সহযোগিতায় এ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্ট (এসিডি) বাল্যবিবাহ নিরোধ কমিটি সক্রিয়করণের লক্ষ্যে এবং রাজশাহী জেলায় বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রোগ্রাম ম্যানেজার মনিরুল ইসলাম পায়েল বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে আর কী কী করা প্রয়োজন তা মাল্টিমিডিয়ায় সকলের সামনে উপস্থাপন করেন।

রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সাবিহা সুলতানা বাল্যবিবাহ বন্ধে বেশ কিছু দিকনিদের্শনা প্রদান করেন। ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যবৃন্দকে কার্যকর ভূমিকা নিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের মনিটরিং এবং ফলোআপের উপর তাগিদ দেন। একই সাথে প্রতিমাসে যাতে ইউনিয়ন পরিষদ সভা সম্পন্ন করনে এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের জানান সেটিও নিশ্চিত করার কথা বলেন। উপজেলা চেয়ারম্যানদের প্রতি বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে সক্রিয় অংশগ্রহণের অনুরোধ করেন।

সভায় রাজশাহী জেলার বিভিন্ন উপজেলার উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিভিন্ন সরকারি দফতরের কর্মকর্তা এবং আইন-শৃঙ্খলার কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এসময় বাগমারা উপজেলা চেয়ারম্যান অনিল কুমার সরকার বলেন বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে গ্রামে গ্রামে যেতে হবে এবং বাবা মাকে বাল্যবিবাহের কূফল তুলে ধরতে হবে, পাশাপাশি ধর্মীয় নেতাদের এই কাজে সম্পৃক্ত করতে হবে। বাঘা উপজেলা চেয়ারম্যান লায়েক উদ্দিন লাবলু সমাজের সচেতন মহলকেও এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

সমাজসেবা অধিদপ্তরের রাজশাহী উপপরিচালক হাসিনা মমতাজ, রাজশাহী জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন, রাজশাহী জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মনজুর কাদেরসহ জেলার বিভিন্ন সরকারী দফতরের কর্মকর্তাবৃন্দ এসময় তাদেও মতামত ব্যাক্ত করেন।

সভায় বক্তারা আরো বলেন, বাল্যবিবাহ বন্ধে আইনের সঠিক প্রয়োগ নিশ্চিত করা, বাল্যবিবাহ রোধে বিবাহ নিবন্ধন প্রক্রিয়ার আধুনিকায়ন, বাল্যবিবাহ ও নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে উপজেলা ও ইউনিয়ন কমিটি সক্রিয়করণ এবং শক্তিশালী করা একই সাথে বাল্যবিবাহের ক্ষতিকর দিকগুলো নিয়ে ব্যাপক প্রচার প্রচারণা চালানোর উপর জোর তাগিদ দেন

রাজশাহীর সময় / এএইচ