২৯ মে ২০২৪, বুধবার, ০৫:২০:৫৫ পূর্বাহ্ন


হাসপাতাল জুড়ে কান্না আর হাহাকার, ইজরায়েলের অভিযানে ভয়ানক পরিস্থিতি
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট করা হয়েছে : ২০-১১-২০২৩
হাসপাতাল জুড়ে কান্না আর হাহাকার, ইজরায়েলের অভিযানে ভয়ানক পরিস্থিতি ছবি: সংগৃহীত


গাজার সব থেকে বড় হাসপাতাল আল শিফাতে সামরিক অভিযান চালায় ইজরায়ের সেনাবাহিনী। ঠিক তারপরেই ত্রাণ নিয়ে যায় রাষ্ট্রসংঘ। রাষ্ট্রসংঘের তরফে জানানো হয়েছে, ইজরায়েলের সেনাবাহিনী অভিযানের ফলে আল শিফা হাসপাতাল বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছে। পরিস্থিতি অত্যন্ত ভয়ানক হয়ে উঠেছে। হাসপাতালে গুরুতর রোগীর সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে।

আল শিফা হাসপাতালের গুরুতর অসুস্থ রোগীদের অন্যত্র স্থানান্তরিত করা হয়েছে বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে একটি টুইট বার্তায় জানানো হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার টেড্রোস আধানম গেব্রেইসাস সোমবার একটি টুইট করেন। সেখানে তিনি বলেন, গাজার আল শিফা হাসপাতালে ইজরায়েলের সামরিক অভিযানের জেরে নিরাপত্তাজনিত সমস্যা দেখা দিয়েছে। গুরুতর অসুস্থ ৩১ জন শিশু, ছয় জন স্বাস্থ্যকর্মী ও একই পরিবারের ১০ জন সদস্যকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। স্থানান্তরের জন্য ছ'টি প্যালেস্তাইন রেড ক্রিসেন্টের অ্যাম্বুল্যান্স ব্যবহার করা হয়েছে। শিশুদের আল-হেলাল আল-ইমাইরাতি ম্যাটারনিটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে নবজাতকদের আইসিইউতে রাখা হয়েছে।

আল-শিফা হাসপাতাল থেকে বাকি রোগী এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের দ্রুত স্থানান্তর করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। তবে হামাস ও ইজরায়েলের নিরাপত্তারক্ষীদের গুলির লড়াইয়ের জন্য এই পরিকল্পনা সাময়িকভাবে স্থগিত করে রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, 'আমরা গাজার স্বাস্থ্যকর্মীদের অসাধারণ সাহসিকতা এবং পরিষেবা দেখতে পেয়েছি। সেখান থেকে আমরা অনুপ্রাণিত ও প্রভাবিত হয়েছি। গাজার আল শিফা হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীরা সবচেয়ে কঠিন এবং কঠিন পরিস্থিতিতে রোগীদের সেবা করে গিয়েছেন। আমরা প্যালেস্তইন রেড ক্রিসেন্ট, রাষ্টসংঘ এবং অন্যান্য সংস্থার সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞ।'