২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, সোমবার, ১০:১৬:৫১ পূর্বাহ্ন


ইউক্রেনের সহায়তা বিল আটকে গেল মার্কিন কংগ্রেসে
আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৭-১২-২০২৩
ইউক্রেনের সহায়তা বিল আটকে গেল মার্কিন কংগ্রেসে ইউক্রেনের সহায়তা বিল আটকে গেল মার্কিন কংগ্রেসে


যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধী দল রিপাবলিকান দলের সিনেটররা ইউক্রেন এবং ইসরাইলের জন্য বিলিয়ন ডলার নতুন নিরাপত্তা সহায়তা জন্য জরুরি বিল আটকে দিয়েছে। বুধবার অভিবাসন নিয়ন্ত্রণে মেক্সিকোর সাথে মার্কিন সীমান্তে কঠোর পদক্ষেপের দাবি তুলে রিপাবলিকান সিনেটররা এ বিলের বিরুদ্ধে ভোট দেন।

১১০.৫ বিলিয়ন ডলারের এ নতুন সহায়তা বিল পাশের জন্য দরকার ছিল ৬০ ভোটের। তবে বিলটির পক্ষে ভোট পড়ে ৪৯ টি এবং বিপক্ষে ভোট পড়ে ৫১টি। এর ফলে ইউক্রেন-ইসরাইলের সহায়তার ভবিষ্যত অনিশ্চয়তায় পড়ল। কংগ্রেসের শীতকালীন বিরতির আর মাত্র কয়েকদিন বাকি। এর মধ্যে দেশটির সিনেটররা বিলটি আলোচনার টেবিল থেকে ফেরত পাঠাল।

প্রত্যেক রিপাবলিকান সিনেটর এ বিলের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন। এমনকি স্বতন্ত্র সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্সও বরাবর ডেমোক্র্যাটদের ভোট দিয়ে আসলেও এ বিলের বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন। ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে ইসরাইলের ‘বর্তমান অমানবিক সামরিক কৌশল’ পক্ষে অর্থায়নের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন তিনি।

স্যান্ডার্স বলেছেন, ‘আমি বিশ্বাস করি না যে, ইসরাইলের ডানপন্থী নেতানিয়াহু সরকারের বর্তমান সামরিক অভিযান অব্যাহত রাখতে আমাদের ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি বরাদ্দ করা উচিত।’ গাজা উপত্যকায় ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর চলমান অভিযানের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এ অভিযানে এখনও পর্যন্ত হাজার হাজার বেসামরিক মানুষকে হত্যা করেছে।’

সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ ডেমোক্র্যাট নেতা চাক শুমার এ বিলে ‘না’ ভোট দিয়েছেন। ভোটের পরে শুমার ইউক্রেনের পতনের ঝুঁকির কথা উল্লেখ করে বলেছেন, ‘এটি একটি গুরুতর মুহূর্ত যা ২১ শতকের দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব ফেলবে। এর প্রভাব পশ্চিমা গণতন্ত্রের পতনের ঝুঁকি বয়ে আনতে পারে।’ রিপাবলিকানরা বলেছেন, কঠোর অভিবাসন নীতি এবং দক্ষিণ সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ করা অপরিহার্য হয়ে পড়েছে।

ইউক্রেনের জন্য বিলিয়ন ডলার তহবিলের বিষয়ে বাইডেনের অনুরোধের সমাধান করা যায় এ নিয়ে কংগ্রেসের রিপাবলিকান এবং ডেমোক্র্যাটরা কয়েক মাস ধরে বিতর্ক করে আসছে। ইসরাইলে ৭ অক্টোবর হামাসের হামলার পর, ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরে মার্কিন স্বার্থের জন্য এবং আন্তর্জাতিক মানবিক ত্রাণের জন্য নতুন এ সহায়তা তহবিল গঠনের জন্য এ বিতর্ক চলে আসছে।

নতুন ওই সহায়তা বিলে ১১০ বিলিয়নের মধ্যে ৫০ বিলিয়ন ডলার ইউক্রনের জন্য, ১৪ বিলিয়ন ইসরাইলের সেনাদের জন্য এবং সীমান্ত নিরাপত্তার জন্য ২০ বিলিয়ন ডলারের বরাদ্দ করা হয়েছিল। এদিকে হোয়াইট হাউজের পক্ষ থেকে ইউক্রেনকে আর্থিক সহায়তার তহবিল খুব শিগগির শেষ হয়ে যাবে বলে সতর্ক করেছে। সূত্র: ওয়াশিংটন পোস্ট।