২৯ মে ২০২৪, বুধবার, ০৪:৫৪:২৬ পূর্বাহ্ন


নগ্ন হয়ে ঘুমালে কমবে স্ট্রেস
ফারহানা জেরিন
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৯-০৪-২০২৪
নগ্ন হয়ে ঘুমালে কমবে স্ট্রেস ফাইল ফটো


গরমে প্রাণ ওষ্ঠাগত। এসি ছাড়া রাতে ঘুমানোও কষ্টকর হয়ে যাচ্ছে। গায়ে জামা রাখা যাচ্ছে না। কিন্তু পোশাক ছাড়া কি ঘুমানো যায়? শুনতে অশালীন মনে হলেও, নগ্ন হয়ে ঘুমানো স্বাস্থ্যের জন্য ভাল। এমন অনেকেই রয়েছেন, যাঁদের গরমের জন্য রাতে ঠিকমতো ঘুম হয় না। আবার কেউ কেউ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ও আরামদায়ক পোশাক পরে ঘুমোতে পছন্দ করেন।

কিন্তু সাম্প্রতিক একটি সমীক্ষা জানাচ্ছে, রাতে পোশাক না পরে, নগ্ন অবস্থায় ঘুমোলে ঘুম ভাল হয়।

ঘুমের মান উন্নত হয়: জামাকাপড় ছাড়া ঘুমোলে শরীর ঠান্ডা থাকে। ঘুমনোর সময় দেহের তাপমাত্রায় কমে যায়। নগ্ন অবস্থায় ঘুমোলে দ্রুত ঘুম ধরে। এতে অনিদ্রার সমস্যা দূর এড়ানো যায়।

ত্বকের স্বাস্থ্য ভাল থাকে: পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম ত্বকের স্বাস্থ্য উন্নত করে। ঘুমোলে শরীরে পুনরুদ্ধার হয়। দেহের তাপমাত্রা কমলে ঘুমের সময় ত্বক শ্বাস নিতে পারে। নগ্ন হয়ে ঘুমোলে ত্বকের ইলাস্টিক বৃদ্ধি পায়।

মানসিক চাপ কমে: নগ্ন হয়ে ঘুমোলে মানসিক চাপ কমে। পোশাক ছাড়া ঘুমোলে শরীরের তাপমাত্রা কমে। পাশাপাশি কর্টি‌সল হরমোনের মাত্রা কমে। এর জেরে মানসিক চাপ কমে এবং শারীরিক আরাম মেলে।

ভ্যাজাইনার স্বাস্থ্যের জন্য ভাল: আঁটসাঁট অন্তর্বাস পরে ঘুমোলে গোপনাঙ্গে ব্যাকটেরিয়া ও ইস্ট সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ে। নগ্ন ঘুমোলে যোনি এলাকার সংক্রমণ এড়ানো যায়। এতে যৌন মিলনের সময় হওয়া অস্বস্তিও এড়ানো যায়।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: ৭-৮ ঘণ্টার কম ঘুম দেহে একাধিক রোগ ডেকে আনে। কিন্তু নগ্ন অবস্থায় আপনি যদি ৭ ঘণ্টা ঘুমান, দেহে ইমিউনিটি বৃদ্ধি পায়। এর জেরে দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।

যৌন ক্ষমতা বাড়ায়: আঁটসাঁট পোশাক পরে ঘুমোলে পুরুষদের গোপনাঙ্গের চারপাশে তাপমাত্রা বেড়ে যায়। এর জেরে শুক্রাণুর সংখ্যা কমে যায়। স্বাস্থ্যকর যৌনজীবনের বজায় রাখতে নগ্ন বজায় ঘুমান।