১২ অগাস্ট ২০২২, শুক্রবার, ১২:২০:০৩ পূর্বাহ্ন


তামিমকে মিথ্যাবাদী বলিনি: পাপন
ক্রিড়া ডেস্ক :
  • আপডেট করা হয়েছে : ৩০-০৬-২০২২
তামিমকে মিথ্যাবাদী বলিনি: পাপন তামিমকে মিথ্যাবাদী বলিনি: পাপন


টি-টোয়েন্টিতে তামিম ইকবালের ফেরা না ফেরা নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে পাড়ি দেয়ার আগে বেশ জলঘোলা হয়েছিল দেশের ক্রিকেটে। ওয়ানডে অধিনায়ককে তার সিদ্ধান্তের বিষয়ে কথা বলার সুযোগ দেয়া হয় না এমন প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এক গণমাধ্যমকর্মীকে বিষয়টি মিথ্যাচার বলে অভিযোগ করেছিলেন। তবে তিনি নাকি তামিমকে মিথ্যাবাদী বলেননি।

ঘটনার শুরু তামিমের টি-টোয়েন্টিতে ফেরা না ফেরা নিয়ে। ওয়ানডে অধিনায়ক জুনের প্রথম দিকে দেশের একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে টি-টোয়েন্টিতে ফেরা না ফেরার বিষয়ে প্রশ্নের সম্মুখীন হন।

সেখানে তিনি বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি নিয়ে আমার যে প্ল্যান, সেটা তো আমাকে বলার সুযোগই দেয়া হয় না। হয় আপনারা (মিডিয়া) বলে দেন, নয়তো অন্য কেউ বলে দেয়। তো এভাবেই চলতে থাকুক। আমাকে তো বলার সুযোগ দেয়া হয় না। এতদিন ধরে আমি ক্রিকেট খেলি, এটা ডিজার্ভ করি যে আমি কী চিন্তা করি না করি, এটা আমার মুখ থেকে শোনা। কিন্তু হয় আপনারা কোনো ধারণা দিয়ে দেন, নয়তো অন্য কেউ এসে বলে দেয়। যখন বলেই দেয়, তখন আমার তো কিছু বলার নেই।’

তামিমকে কথা বলার সুযোগ দেয়া হয় না এমন প্রশ্নে বোর্ড সভাপতি এক গণমাধ্যমকর্মীকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘এটা স্রেফ মিথ্যা কথা। তাকে আমার বাসায় ডেকে আমি চারবার টি-টোয়েন্টি খেলতে অনুরোধ করেছি। বোর্ডের অন্য সদস্যরাও তাকে অনুরোধ করেছে, সে বলেছে খেলবে না। এখন দেখেন কী বলছে।

এরপর গণমাধ্যমগুলোতে সংবাদের শিরোনাম, তামিমকে মিথ্যাবাদী বললেন পাপন। তার প্রায় ২০ দিন পর প্রসঙ্গ উল্লেখ করে পাপন বলেন, ‘তামিম এখানে কেন মিথ্যাবাদী হবে আমি তো বুঝি না। ওর সঙ্গে যোগাযোগ করিনি এ কথাটা মিথ্যা। যে বলেছে সেই মিথ্যাবাদী। তামিম বলছে, ও বলেনি। সে স্বীকার করছে যে ওর সঙ্গে বোর্ড বসেছে। এখানে মিথ্যাবাদী হওয়ার কিছু তো আমি দেখি না। দেখলাম ঢালাও করে খবর হচ্ছে, আমি বলেছি তামিম মিথ্যাবাদী। প্রমাণ দেখান, আমার কাছে রেকর্ড আছে।’

এ বিষয়ে তামিম অবশ্য আগেই খোলাসা করেছেন। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ক্যারিবীয় বিমান ধরে নিজের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিস্তারিত বর্ণনা দেন তিনি। যেখানে তিনি উল্লেখ করেন বোর্ডের সঙ্গে তার নিয়মিতই যোগাযোগ হচ্ছে।

তিনি লিখেন, ‘বোর্ডের সঙ্গে আমার যোগাযোগ নিয়মিতই আছে। ৬ মাসের বিরতি নিয়েছি। এখনো দেড় মাসের বেশি বাকি। এর মধ্যেও মিডিয়া নানা কথা লিখে বা বলে যাচ্ছে; অন্যরাও কথা বলেই যাচ্ছেন। আমার কথা আমাকে বলতে দেয়া হচ্ছে না।