০২ অক্টোবর ২০২২, রবিবার, ১১:২৮:৫৪ পূর্বাহ্ন


সাপাহারে বসতবাড়িতে হাঙ্গামা, ভাঙচুর ও মারপিঠে গুরুতর যখম ১
হাফিজুল হক, সাপাহার নওগাঁ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট করা হয়েছে : ৩০-০৭-২০২২
সাপাহারে বসতবাড়িতে হাঙ্গামা, ভাঙচুর ও মারপিঠে গুরুতর যখম ১ সাপাহারে বসতবাড়িতে হাঙ্গামা, ভাঙচুর ও মারপিঠে গুরুতর যখম ১


নওগাঁর সাপাহারে  একটি বিবাদমান  নির্মিত বশত বাড়ী সম্পিত্তির উপর হাঙ্গামা,ভাঙচুর ও মারপিঠের ঘটনা ঘটেছে,  সৎ ভাই ও ভাবির  আঘাতে ছোট্ট ভাইয়ের স্ত্রী জখম । হাসপাতালে ভর্তির পর থানায় অভিযোগ।

২৯ জুলাই শুক্রবার সকাল  ৯ টার  দিকে উপজেলার রামরামপুর (খঞ্জনপুর) গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। পরবর্তীতে সন্ধ্যায় থানার অভিযোগ দিলে, অভিযোগ পেয়ে সাপাহার থানার পুলিশ পরিদর্শক (অফিসার ইনচার্জ)ওসি'র নির্দেশে থানার  এসআই সামমোহাম্মদ ফোর্সসহ  হামলার শিকার ভিকটিমকে দেখতে হাসপাতালে প্রাথমিকভাবে  পরিদর্শনে গিয়েছে।

থানায় দাখিলকৃত অভিযোগের প্রেক্ষিতে  জানা গেছে গ্রামের মধ্যে বিবাদমান নির্মানাধীন বশতবাড়ীতে খঞ্জনপুর গ্রামের মৃত্যু সাব্বির হকের পুত্র তোজাম্মেল হোসেন ভুট্টু (৫২) ও তার স্ত্রী পলি আক্তার(৪৫), একই গ্রামের মৃত্যু তসলিম উদ্দিনের ছেলে বেলাল হোসেন(৪০) ও  রমজান আলী(৪৫) বেলালের স্ত্রী  বেলী আক্তার(৩৫) ও রাশেদা খাতুন(৩২) ও রায়হানের স্ত্রী সাবিনা খাতুন(৩৫) অতর্কিতভাবে হাঙ্গামা চালিয়ে দরজা ভাংচুর করে অনাধিকার বাসার মধ্যে প্রবেশ করে আইনুলের স্ত্রী মোর্শেদা বেগম(৩৫) কে তোজাম্মেল হোসেন হাসুয়া দিয়ে মাথায় কোপ ও পলি আক্তার ধারালো কোপ দা দিয়ে আঘাত করে, মাতা ও হাতে গুরুতর জখম হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়িলে সকলে মিলে এলোপাতাড়ি মেরে অচেতন করেন বলে জানা যায়। এ সময় স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য পাঠানোর ব্যবস্থা করেন। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তার মাথায় ৪ টি ও হাতে ৩ টি সেলাই দিয়ে ওই গৃহবধুকে ওয়ার্ডে ভর্তি করে দেয়। পরবর্তীতে সন্ধ্যায় তার স্বামী আইনুল হক বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

এবিষয়ে থানার পুলিশ পরিদর্শক (অফিসার ইনচার্জ )ওসি আল মাহমুদের এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন,  অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।