২৪ জুন ২০২৪, সোমবার, ১২:৪৩:৩০ অপরাহ্ন


মানিকগঞ্জে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ
অনলাইন ডেস্ক:
  • আপডেট করা হয়েছে : ০১-০৯-২০২২
মানিকগঞ্জে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ ফাইল ফটো


মানিকগঞ্জে বিএনপি নেতাকর্মী ও পুলিশের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়েছে। এতে পুলিশ ও সাংবাদিক ছাড়াও বিএনপির বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (০১ সেপ্টেম্বর) বেলা সোয়া ১১টার দিকে জেলা শহরের খালপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ টিয়ারশেল নিক্ষেপ করেছে। এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে বিএনপির নেতাকর্মীরা ইটপাটকেল ছোড়েন। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, বিএনপির ৪৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে মানিকগঞ্জ দলীয় কার্যালয়ের সামনে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে আলোচনা সভার আয়োজন করেন বিএনপি। নেতাকর্মীরা শহরের আশপাশে অবস্থান নিয়ে দলীয় কার্যালয়ে আসার প্রস্তুতি নেন।  সকাল ১০টার দিকে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সিফাত কোরাইশি সুমন ও সাধারণ সম্পাদক রাজিদুল ইসলামের নেতৃত্বে কয়েক শ’ ছাত্রলীগ কর্মী ভাষা শহীদ রফিক চত্বরে জড়ো হন। এরপর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা স্লোগান দিয়ে শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে।

এদিকে সকাল ১১টার দিকে শহরের সেওতা এলাকা থেকে বিএনপির কয়েক শ’ নেতাকর্মী মিছিল নিয়ে দলীয় কার্যালয়ের সামনে যাওয়ার সময় খালপাড় মোড়ে পুলিশ বাধা দেন। বাধা উপেক্ষা করে বিএনপির মিছিল এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় মিছিলের পেছন দিক থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে বিএনপির নেতাকর্মীরা ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। বিএনপি নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশও প্রথমে লাঠিপেটা পরে টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। পরে সেওতা শহীদ তুজ সড়কে পূর্ব পাশে পুলিশ ও উত্তর পাশে বিএনপির নেতাকর্মীরা  অবস্থান নেন। দুপুর ১২টার দিকে  বিএনপির নেতাকর্মীরা ঘটনাস্থল থেকে চলে গেলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।
জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এসএ কবীর জিন্নাহ বলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে তিন দিন আগে পুলিশের কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু পুলিশ অনুমতি দেয়নি। বিএনপির শান্তিপূর্ণ মিছিলে পুলিশ লাঠিপেটা ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এতে বিএনপির বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত ও কয়েকজনকে ধরে নিয়ে গেছে পুলিশ। এ ঘটনার প্রতিবাদে দুপুর দেড়টার দিকে বিএনপির পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করার কথা।

তবে পুলিশের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো বক্তব্য দেয়া হয়নি।


রাজশাহীর সময় / এএম