০২ অক্টোবর ২০২২, রবিবার, ১১:৩৭:৪৬ পূর্বাহ্ন


রামেকে ২০২১ সালে সাপে কাটা রোগী ভর্তি ৫৮৭ মৃত্যু ৫৩
মঈন উদ্দীন
  • আপডেট করা হয়েছে : ২০-০৯-২০২২
রামেকে ২০২১ সালে সাপে কাটা রোগী ভর্তি ৫৮৭ মৃত্যু ৫৩ ফাইল ফটো


রাজশাহীতে ৫ম আন্তজাতিক সর্প দংশন সচেতনতা দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে সোমবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাকে কলেজের অধ্যক্ষ ডা. নওশাদ আলী।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী। মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা.মো.খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা.আবু শাহীন। সভায় সর্প দংশন বিষয়ে বিষধর সাপ চিকিৎসা পদ্ধতি ও সচেতনতা নিয়ে আলোচনা করা হয়। এই অনুষ্ঠানে সর্প দংশন নিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তিকৃত রোগীর তথ্য তুলে ধরা হয় যেখানে ২০২১ সালে মোট ৫৮৭ জন সাপে কাটা রোগী ভর্তি হয়। এদের মধ্যে ১৭৮ জন বিষধর (কোবরা, কেউটে- ১৪১ জন এবং রাসেল ভাইপার-৩৭ জন) এবং মৃত্যু বরণ করে ৫৩ জন (কোবরা, কেউটে- ৪৩ জন এবং রাসেল ভাইপার-১০ জন)। বিষধর সাপ রাসেল ভাইপার নিয়ে চিকিৎসা জনিত আলোচনা করা হয়। কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয় এতে মৃত্যর হার প্রায় ৩০%। এছাড়াও চিকিৎসার সুবিধার্থে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা সমূহ হাসপাতালে করা হয় এবং ‘সর্প দংশন ক্লিনিক’ অত্র হাসপাতালে চালু করার ব্যাপারে গুরুত্ব আরোপ করা হয়। এবং হাসপাতালে ভর্তিকৃত রোগীসহ রোগীর স্বজনদের সর্প দংশনের ব্যাপারে সচেতনতার জন্যও আলোচনা করা হয়। চিকিৎসকরা জানান সর্প দংশনে গ্রামিন চিকিৎসা রুগীকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয় তায় কাউকে যদি সাপে কামড়দেয় তাকে দ্রত হাসপাতালে নিতে হবে। হাসপাতালে সাপে কাটা রুগীর যাবতীয় চিকিৎসা ও ওষুধ হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টা ফ্রি দেওয়া হয়।