২৪ জুন ২০২৪, সোমবার, ১২:৩৩:৩০ অপরাহ্ন


ঈশ্বরদীতে চিকিৎসকের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু
ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি:
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৮-০৬-২০২৪
ঈশ্বরদীতে চিকিৎসকের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু ঈশ্বরদীতে চিকিৎসকের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু


পাবনার ঈশ্বরদীতে চিকিৎসকের অবহেলায় জিমু খাতুন (১৯) নামের এক মায়ের প্রসবকালে নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। চিকিৎসকের পরিবর্তে নার্সরা সন্তান প্রসব করানোর চেষ্টা করানোয় এ ঘটনা ঘটে।

শনিবার (৮ জুন) উপজেলার পৌর এলাকার হাসপাতাল রোডে ‘জমজম স্পেশালাইজড্ হাসপাতালে’ এ ঘটনা ঘটে। প্রসূতি জিমু খাতুন লালপুর উপজেলার দুয়ারিয়া ইউনিয়নের মাঝগ্রাম এলাকার সাইদুর রহমানের স্ত্রী। এ বিষয়ে ঈশ্বরদী থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন জিমুর স্বামী সাইদুর রহমান।

জিমুর পরিবার জানান, শুক্রবার রাত দশটার দিকে জিমুকে জমজম স্পেশালাইজড্ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালের চিকিৎসক নাফিসা কবির রোগীর আলট্রাসনো করতে বলেন। রিপোর্ট দেখে জিমুর পরিবারকে স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় ডেলিভারির জন্য তিন ঘন্টা অপেক্ষা করতে বলে বাসায় চলে যান। পরবর্তীতে রাত তিনটার দিকে জিমুর প্রসবের তীব্র ব্যাথা বেড়ে গেলে ডাক্তারকে খবর দেওয়া হয়। কিন্তু তিনি হাসপাতালে না এসে কর্তব্যরত নার্সদের দিয়ে সন্তান প্রসবের ব্যবস্থা করার কথা বলে হাসপাতালে আসেননি। এই অবস্থায় হাসপাতালে কর্মরত নার্সরা ওই প্রসূতির ডেলিভারি করানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। এক পর্যায়ে নবজাতকটি ভূমিষ্ট হওয়ার পরপরই মারা যায়।

এ বিষয়ে জমজম স্পেশালাইজড হাসপাতালের পরিচালক ও চিকিৎসক নাফিসা কবিরসহ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সরাসরি সেখানে গিয়ে যোগাযোগ করা হলে তারা গণমাধ্যমের সাথে কথা বলতে রাজি হয়নি।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। মৃত নবজাতকের পোষ্টমর্টেম করার জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত রিপোর্ট এলে সে অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।