০৫ মার্চ ২০২৪, মঙ্গলবার, ০৭:৪০:০৬ পূর্বাহ্ন


রাজশাহীতে “স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে কৃষিতে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব”- বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত
স্টাফ রিপোর্টার :
  • আপডেট করা হয়েছে : ২৭-০৫-২০২৩
রাজশাহীতে “স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে কৃষিতে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব”- বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত রাজশাহীতে “স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে কৃষিতে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব”- বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত


রাজশাহীর শারীরিক শিক্ষা কলেজ মিলনায়তনে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ইনোভেশন টিমেরে উদ্যোগে “স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে কৃষিতে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব”- বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। 

শনিবার (২৭ মে) সকালে এই কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিবিদ জনাব মো: রেজাইল করিম, পরিচালক, পরিকল্পনা, প্রকল্প বাস্তবায়ন ও আইসিটি উইং, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর রাজশাহী অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ শামছুর ওয়াদুদ এবং অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অর্থ ও প্রশাসন উইং-এর পরিচালক কৃষিবিদ মো:জয়নাল আবেদীন। কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জনাব মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ, উপসচিব ( গবেষণা-১ শাখা), কৃষি মন্ত্রণালয়।

কর্মশালায় আগামীতে কৃষি খাতে ব্যবহার যোগ্য সেন্সর IoT নেটওয়ার্ক, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (AI) স্মার্ট ওয়াটার, ন্যানো প্রযুক্তি, সিনথেটিক বায়োলজি, থ্রি-ডি প্রিন্টারের (3-D Printer), স্বনিয়ন্ত্রিত ট্রাক্টর, জেনেটিক্স, ইন্টারনেট অব থিংস ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। 

আলোচনায় ওঠে আসে, চতুর্থ শিল্পবিপ্লব যা রোবোটিক প্রযুক্তির সাথে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করে তার নির্ভুল প্রয়োগের মাধ্যমে কৃষিকে বহুমাত্রিক ক্ষেত্রে প্রসারিত করবে এবং স্মার্ট পর্যবেক্ষণের মধ্যে ফসলে নিখুঁত উৎপাদন কৌশলকে অনেক সহজ করে তুলবে। মানুষের পক্ষে করা অনেক জটিল ও সময় সাপেক্ষ বিষয় গুলি মাঠপর্যায়ের ডেটা থেকে রিয়েল-টাইম তথ্য পুনরুদ্ধার করে ফসল ব্যবস্থাপনাকে অনেক সহজ করে দেবে। স্মার্ট কৃষি ব্যবস্থাপনায় আবহাওয়ার তথ্য, ফসলে আগাম রোগ পোকামাকড়ের উপস্থিতি নির্ণয় করা, মাটির পিএইচ, পুষ্টিগুণ ও আর্দ্রতা পরিমাপ করা, ফসলের পরিপক্বতার সময় নির্ণয় এবং ফসলের স্বাস্থ্যের অবস্থা পর্যবেক্ষণ করা সম্ভব হবে। মূলত: চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের প্রযুক্তিসমূহ এমন একটি স্মার্ট কৃষি খামার ব্যবস্থা তৈরি করা হবে যাতে উন্নত হবে ফসলের উৎপাদন ও প্রক্রিয়াজাতকরণ কৌশল এবং কৃষিতে আনবে টেকসই পরিবর্তন।

অনুষ্ঠানে কৃষি মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, কৃষক সহ প্রায় ২০০ জন উপস্থিত ছিলেন।