০৫ মার্চ ২০২৪, মঙ্গলবার, ০৭:২৮:৩৮ পূর্বাহ্ন


বোরো ধানের উৎপাদন বাড়াতে ৯০ কোটি টাকা প্রণোদনা
অনলাইন ডেস্ক:
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৯-১০-২০২৩
বোরো ধানের উৎপাদন বাড়াতে ৯০ কোটি টাকা প্রণোদনা ফাইল ফটো


চলতি বছর বোরো মৌসুমে হাইব্রিড জাতের ধানের আবাদ ও উৎপাদন বাড়াতে ৯০ কোটি টাকা প্রণোদনা দেয়া হবে। মাঠ পর্যায়ে শিগগিরই বিতরণ কার্যক্রম শুরু হবে।

বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) এ সংক্রান্ত সরকারি আদেশ জারি করা হয়েছে। এ প্রণোদনার আওতায় ১৪ লাখ ৪০ হাজার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক এক বিঘা জমিতে চাষের জন্য প্রয়োজনীয় ২ কেজি হাইব্রিড বীজ বিনামূল্যে পাবেন।
 
ফলে কৃষি মন্ত্রণালয়ের হিসাবে, বোরোতে হাইব্রিড জাতের ধানের আবাদ ১ লাখ ৯২ হাজার হেক্টর বাড়বে। এতে হেক্টর প্রতি ৪.৯৫ মেট্রিক টন ফলন হিসেবে ৯ লাখ ৫০ হাজার টন অতিরিক্ত চাল উৎপাদন হবে।
 
গত ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১৫ লাখ কৃষককে হাইব্রিড বীজ বিনামূল্যে দেয়া হয়েছিল। এতে ২ লাখ হেক্টর জমিতে হাইব্রিড ধানের আবাদ বেড়েছিল এবং ৯ লাখ ৮৩ হাজার টন চাল উৎপাদন বেড়েছিল।

এদিকে গত ৮ অক্টোবর সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সম্মেলন কক্ষে খাদ্য পরিকল্পনা ও পরিধারণ কমিটির (এফপিএমসি) সভা শেষে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্ৰ মজুমদার, চলতি মৌসুমে আমন ধান ৩০ টাকা, সিদ্ধ চাল ৪৪ টাকা এবং আতপ চাল ৪৩ টাকায় কেনার সিদ্ধান্ত নেয় খাদ্য মন্ত্রণালয়। আমন মৌসুমে মোট ২ লাখ টন ধান ও ৫ লাখ টন চাল কিনবে সরকার।
 
তিনি জানান, এ বছর আমন ধান ও চালের সরকারি সংগ্রহ ও মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। চলতি মৌসুমে প্রতি কেজি আমন ধানের সরকারি ক্রয়মূল্য ৩০ টাকা, সিদ্ধ চাল ৪৪ টাকা এবং আতপ চাল ৪৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ বছর আমন মৌসুমে ৪ লাখ মেট্রিক টন সিদ্ধ চাল, ১ লাখ মেট্রিক টন আতপ চাল এবং ২ লাখ মেট্রিক টন ধান কেনা হবে বলে জানান খাদ্যমন্ত্রী।
 
তিনি বলেন, ‘আশা করছি, আমাদের মজুত ও বিতরণ ব্যবস্থা ভালো। ব্যবসায়ীদের আমরা সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছি। সবকিছু ভালোভাবেই চলছে।’